Categories
কবিতা

রাজদীপ পুরীর গুচ্ছকবিতা

আমরা যারা XYZ: ১

কোথাও কিচ্ছু নেই, সম্পর্করা ভেঙে যাচ্ছে একে একে—
তুমি রংবেরঙের উলের বল নিয়ে বসে আছ, অথচ শীতকাল
ফুরিয়ে গেছে কবেই…

আমি এক হাঁড়ি চোরের সাথে পালিয়ে যাচ্ছি—

তুমি তোমার হাঁটুর বয়সী প্রেমিকের সাথে
শুয়ে থাকতে থাকতে ভাবছ
এবার একটা গান গেয়ে ওঠা যাক,

অন্তরায় পৌঁছানোর আগেই,
তোমার প্রেমিকটির এখন মন খারাপ হচ্ছে
তার X-এর জন্য…

আমরা যারা XYZ: ২

কুচো নিমকির মতো এই সকাল ফুরিয়ে যায় চায়ের টেবিলেই,
তুমি চ্যানেল ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে দাঙ্গার খবর দেখ সারাদিন—
তারপর সন্ধ্যের আগে সাজগোজ সেরে বেরোও শপিং-এ,
করিম চাচার ফুচকা এখনও তোমার খুব প্রিয়,
মাথার ফেজ টুপি খুলে পকেটে রাখতে রাখতে চাচা জিগায়,
—মায়জি, টকজল ঔর লেগা?

পেট ভর্তি টকজল খেয়ে চোঁয়া ঢেঁকুর তোলে
আমার ভারতবর্ষ।

আমরা যারা XYZ: ৩

শুধু একবার ভালোবাসি বলো, দেখবে
আমারও তৃতীয় নয়নে
তোমার মতো জ্বলে উঠবে আলো…

—এই সব প্যানপ্যানে কবিতা লেখার পর
আমরা কিছুক্ষণ সানি লিওনের কথা ভাবি, তারপর
কোনো তরুণী সম্পাদিকাকে বেছে নিয়ে
চ্যাট করতে বসি রাতবিরেতে

আমরা যারা XYZ: ৪

কবিতা হবে ঠিক তোমার মতো, আর তুমি কার মতো হবে?
আমার জানলা দিয়ে যতটা আকাশ দেখা যায়,
তোমার জানলা দিয়েও ঠিক ততটাই?
পাখিটা রোজ সকালে আসে, আমাদের গান শুনিয়ে চলে যায়,
যেদিন আর আসবে না?

প্রশ্নগুলো নিয়ে আজ সারারাত ভাববে তুমি
শুধু উত্তর খুঁজবে না…

আমরা যারা XYZ: ৫

তা বলে ফুঁ দিয়ে উড়িয়ে দেবে— এতটা আহাম্মক তুমি তো নও,
এইটুকুই তো পথ, একাই চলে যাওয়া যায়… তবু এগিয়ে দিয়ে আসি,
যেটুকু ছুঁয়ে থাকা যায়! তুমি নাটোরের বনলতা সেন…

তোমাকে কখনো ভালোবাসা যায়?

2 replies on “রাজদীপ পুরীর গুচ্ছকবিতা”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *