Categories
ধারাবাহিক প্রবন্ধ ফর্মায়েসি

অনিন্দ্য রায়ের ধারাবাহিক: ফর্মায়েসি

অষ্টম পর্ব

শব্দ-সনেট
(Word Sonnet)

আমরা জানি সনেট হল ১৪ লাইনের কবিতা, এর প্রতি লাইনে নির্দিষ্ট মাত্রা সংখ্যা, অন্ত্যমিলবিন্যাস এবং নবম লাইনে ভোল্টা বা পিভট থাকে। আর শব্দ-সনেট ফর্মটি যদিও ১৪ লাইনের কিন্তু এতে প্রতিটি লাইনে কেবল একটি করে শব্দ থাকে, পিভট না থাকলেও চলে, অন্ত্যমিল হয় প্রচলিত কোনো-এক-ধরণের সনেটের নিয়ম অনুসারে।
আমেরিকার কবি ব্রাড লি্টহাউসার (জন্ম: ১৯৫৩) সেক্সপিয়ারীয় সনেটের মিলবিন্যাস মেনে প্রথম এই ধরণের সনেট লেখেন। কাছাকাছি সময়ে ফরাসি কবি রেনে নেলি এক-সিলেবলের শব্দ দিয়ে এই আঙ্গিকে লেখেন ইতালীয় সনেটরীতিতে।

শব্দ-সনেট হল

১৪ লাইনের কবিতা। প্রতিটি লাইনে একটি করে শব্দ। শব্দগুলি এক সিলেবেলের হলেই ভালো।

অন্ত্যমিলবিন্যাস:

ক খ খ ক গ ঘ গ ঘ ঙ চ চ ঙ ছ ছ

বা

ক খ খ ক গ ঘ গ ঘ ঙ চ ছ ঙ চ ছ

বা

ক খ ক খ গ ঘ গ ঘ ঙ চ ছ ঙ চ ছ

বা অন্ত্যমিলহীন হতেও পারে।

এই কবিতা লিরিক্যাল, এর শেকড় মননশীল বোধির গভীরে।

জুডিথ ভন গোদারের লেখা একটি শব্দ-সনেট:

Solitary

Write
chose
white
rose.

Ink
penned
pink
end.

One
traced
scroll.
Lone
graced
soul.

বাংলায় এই অঙ্গিকের চর্চা আমাদের সমৃদ্ধ করবে, আশা করি।

দেহদীঘি

জল
ডুব
খুব
খল

হাঁস
চই
ওই
শ্বাস

হিম
শেষ
বেশ
ডিম

প্রাণ
স্নান

শব্দগুলি একাধিক সিলেবলের হতে পারে, প্রতিটি লাইনের সিলেবল সংখ্যা অভিন্ন হওয়াই উচিত।

মুক্তো
(The Eintou)

আফ্রো-আমেরিকান কবিতার একটি ফর্ম এইনটু। যার অর্থ মুক্তো। ইউরো-আমেরিকান কবিতার ধারা থেকে নিজেদের কবিতাকে মুক্ত করতে যে আঙ্গিকগুলি তৈরি করেছেন আফ্রো-আমেরিকান কবিরা, এটি তার অন্যতম।
এটি—

সাতলাইনের কবিতা।
লাইনগুলির সিলেবল সংখ্যা যথক্রমে ২-৪-৬-৮-৬-৪-২, যে জীবনের চক্রাকার চরিত্রকে নির্দেশ করে। লিখিত হওয়ার পর এই কবিতা দেখতে অনেকটা ‘মুক্তর মতো’ গোল।
আফ্রো-আমেরিকান ভাষা, সংস্কৃতি, চিত্রকৌতুক, প্রবাদ, কৌতুক এই কবিতায় মিশে থাকে।

স্টিফেন বিসলে-র লেখা একটি এইনটু

Your love
Gift from above
Like sweet spring rain and dew
Giving enlightenment to me
You have painted my soul
Filled with such grace
You bring

বাংলায় একে বলতে পারি ‘মুক্তো’।

ঘামের
তলায় গোপন
উপোষ চাবুক কান্না
মুছতে মুছতে হাতের আঙুল
ক্ষয়ে যেতে থাকে
দাগ মোছে না
তবু

বাঁ-হাতের কবিতা
(Left-Handed Poems)

‘বাঁ-হাতের কবিতা’ হল এমন কবিতা যা হঠাৎ বাঁক নেয় আর পাঠককে নতুন দিকে চালিত করে।
এই ফর্মটির স্রষ্টা আমেরিকান কবি জন স্ক্রোইডার অবশ্য চার লাইনের ‘ক খ ক খ’ অন্ত্যমিলের বিশেষ কবিতাকেই ‘বাঁ-হাতের কবিতা’ বলেছেন, যেখানে চতুর্থ লাইনটি আগের তিন লাইনের ভাবনার থেকে ভিন্ন পথে অকস্মাৎ ঘুরে যায়।

Lawrence (Larry) Eberhart ওরফে Lawrencealot-এর একটি:

The Daisies Were the Clue

I did not shirk with my home work; my teacher’d made it clear
that in her view I’d better do the work and get on track.
There was enough quality stuff beginning to appear
but then I saw the fatal flaw; it wasn’t my knapsack.

‘বাঁ-হাতের কবিতা’ বাংলায় বেশ আকর্ষনীয় ফর্ম ও স্টাইল হয়ে উঠতে পারে।

গোধূলিতে কবি

সুর্য অস্তে চলেছেন, আকাশে কমলালেবু খসে পড়ছে দ্রুত
পাখিরা ফেরার পথে একবার ঠুকরে নিচ্ছে বোঁটা ফলটির
চোখের সামনে থেকে খুলে যাচ্ছে আলোকের শেষতম সুতো
কিছুতে কিছুই যায়-আসে-না তোমার, তুমি জন্মান্ধ, বধির

প্রথম পর্ব

দ্বিতীয় পর্ব

তৃতীয় পর্ব

চতুর্থ পর্ব

পঞ্চম পর্ব

ষষ্ঠ পর্ব

সপ্তম পর্ব

4 replies on “অনিন্দ্য রায়ের ধারাবাহিক: ফর্মায়েসি”

প্রতিটি পর্বের জন্য অপেক্ষা রাখা থাকে। মনে হয় বর্ণপরিচয় বা সহজপাঠ ধরেছি। অনিন্দ্যদার মতো শিক্ষক পেয়ে সত্যিই ধন্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *