Categories
কবিতা

সিদ্ধার্থ সিংহের গুচ্ছকবিতা

কী করে বলি

হাইকম্যান্ডকে কী করে বলি!

ও রকম দু-চারটে খুন সবাই করতে পারে
কিন্তু এক কোপে কারো মাথা নামিয়ে
সেই মুণ্ডু নিয়ে কখনও কি ফুটবল খেলেছেন প্রকাশ্য রাস্তায়?

Categories
কবিতা

অত্রি ভট্টাচার্য্যের কবিতা

ধর্ষণত্রস্ত

বিকেলটুকু এখনও ততখানিই তার যতটুকু পরিষ্কার হয়,
কাচের রাস্তার মতো চকচক করছে আধাশিশুদের গাল,
গাল বেয়ে ঝরছে মরিচ। এক মৃত কবির
পাখনা পড়ে রয়েছে পাখিরা তাই ঠুকরে খাচ্ছে।

Categories
কবিতা

সেলিম মণ্ডলের গুচ্ছকবিতা

স্মৃতির মগজাস্ত্র থেকে


একদিন ঠিক হবে ভেবে ছেনে ফেলি মাথা ও বুক

দুপুরের গলা ভাত সঙ্গে ঘি
মুখেতে ওঠে না কিছু

Categories
কবিতা

আম্রপালী দে’র গুচ্ছকবিতা

আর্ট

আবেগ নিকানো হয়ে গেলে
ছেলেটি বসে পড়ে কবিতার উপর

আশা করে তারাবাজদের হুজুগ
ঝুলি ভরে দেবে

Categories
কবিতা

রঞ্জন ভট্টাচার্যের গুচ্ছকবিতা

ডাকাডাকি ১

তুমি জঙ্গল পেরিয়ে ভালোবাসা পেরিয়ে নিস্পলক চেয়ে আছ। তোমার নৌকার মতো ঠোঁটের দিকে চেয়ে আছি আর অবিরাম বৃষ্টি পড়ছে। আমি ভেজা শরীরে পারিপার্শিক হাজার ঝামেলা দু’হাতে দূরে ঠেলার চেষ্টা করি, ব্যর্থ হই।

Categories
কবিতা

সুবীর সরকারের গুচ্ছকবিতা

সাঁতার

বকুনি এড়াবার জন্য হয়তো
মাঠ, বাগান ও
শস্যক্ষেত্র
তারপর পা ফসকে

Categories
কবিতা

সমন্বয়ের গুচ্ছকবিতা

ক্ষরণ অতএব কাঠপোকামুক্তি


শব্দের আগাগোড়া বুঝে নিলে মধ্যের শ্বাস ভাস্কর হতে পারে না। শব্দ হাঁপায়, সাদা বুকে দীর্ঘ শ্বাসের ভারে শুয়ে পড়ে। অধিক হাঙ্গামার পর পাতারা হিমাচল খুঁজতে যায়…

Categories
কবিতা

পৃথ্বী বসুর গুচ্ছকবিতা

কবর

ফুল দাও, চুপচাপ নিই
ফুল মরে যায়, তাও আসো

এখানে মাটির নীচে
কার মৃত হাড়, কার ছায়া

Categories
কবিতা

গৌতম দাসের ‘অন্তর আলির নামচা’ থেকে কবিতাগুচ্ছ

লন্ড্রি

কাজে যাওয়ার সময় দেখি—
হচ্ছে
ঘরে ফেরার সময় দেখি—
হচ্ছে

Categories
কবিতা

বিশ্বজিৎ লায়েকের গুচ্ছকবিতা

খোয়াব

মুক ও বধির এক নদী পড়ে আছে বিছানায়
দু’পাশে ফুটেছে কাশ
ভাঙাচোরা এই সিঁড়ি ঘাট মাঝি জানে না নৌকার ইতিহাস
ভাবে বোবা হয়েই কাটিয়ে দেবে ইহকাল