অঙ্কুশ ভৌমিকের কবিতা

আলোর সন্ধানে

গুঁড়িপথ ধরে গুহার বাইরে এসে দেখলাম, বাইরেটা ভীষণ অন্ধকার


প্রলাপ

শূন্যতার দু-পাশে দুটো বদ্ধ পাগল বসে আছে।

অবগুণ্ঠন

প্রেমিকাকে প্রথমবার নষ্ট করার পর একটি প্রেম ও একটি কবিতা খুঁজে পেলাম।

গতানুগতিক

ভেঙে যাওয়ার পর একটা মদের গেলাস আর মৌচাকের কোনো পার্থক্য থাকে না।

অসুখ

মুখোশ খুলতেই নেকড়েটা আমার দিকে তেড়ে এল, বাথরুমের আয়নায়…

পরাজয়

যতবার সমুদ্রকে দেখি, মনে হয় হেরে গেছি এই জীবনে

সময়

তারপর, সন্ধ্যে হল। রাত্রি হল। অন্ধকার হল না পৃথিবী

যখন সব শেষ হবে

মর্গের বেওয়ারিশ লাশটাও জানে, ওর প্রেমিকা সুখে আছে

সুখ

বিদ্রোহের রক্ত পৃথিবীর সবচেয়ে উত্তম মানের পানীয়

প্রথম শ্রেণীর কবিতা

কিছুই বলার নেই, দুটো খিস্তি ছাড়া

অঙ্কুশ ভৌমিকের কবিতা

আমাদের নতুন বই