লেখক নয় , লেখাই মূলধন

ন্‌কাতেকো মাসিঙ্গা-র কবিতা

ভাষান্তর: অনিন্দ্য রায়

সৃষ্টিতত্ত্ব

চ্যাপেলে ঢোকার পথে
মোজেইক রয়েছে মেঝেয়

মোজেইক মানে টুকরোদের জুড়ে বানানো একটা ছবি
মোজেইক মানে মোজেসের

বড়ো হাতের অক্ষর টুকরোকে জীবন্ত করে তোলে

কথায় বলে
আমাদের ভাবনা মতো, এসো, মানুষকে বানিয়ে নিই

কথায় বলে
ধুলো তুমি, ধুলোতেই যাবে ফিরে


মসির সঙ্গে আমার অগাস্টে দেখা

যখন ধুলো ছাড়া
সকলই থিতু হয়

অগাস্ট মানে অষ্টম মাস
অগাস্ট মানে শ্রদ্ধেয়

বড়ো হাতের অক্ষর বুঝিয়ে দেয় শ্রদ্ধা আসে সময়ের সঙ্গে


আমার টুকরো-হয়ে-যাওয়া মানুষকে বলেছিলাম:
আমি ঈশ্বর নই

আমার টুকরো-হয়ে-যাওয়া মানুষকে বলেছিলাম:
আমি ধুলো নই
তাই তোমার সঙ্গে থিতু হতে
চাই আমি


আমাদের বিয়ের দিনে

আমি তাকে চ্যাপেলের মেঝেয় মুখ থুবড়ে ছারখার হয়ে পড়ে থাকতে দেখেছিলাম

আমাদের বিয়ের দিনে

মুঠিতে আমার ধরেছিলাম ধুলো


মানুষেরা তাদের নামের যোগ্য হয়ে বেঁচে থাকতে পারে না, বলতে পারো না

কবি পরিচিতি:

দক্ষিণ আফ্রিকার এই সময়ের উল্লেখযোগ্য কবি ন্‌কাতেকো মাসিঙ্গা। তিনি ২০১৮-য় পুসক্যাট পুরস্কারের বিবেচিত হন এবং ২০১৯-এ ‘এবেদি ইন্টারন্যাশনাল রাইটার্স রেসিডেন্সি’র ফেলোশিপের সম্মান পান। ব্রিটল অ্যানিভার্সারি পেপার পুরস্কার (২০১৯) জয়ী এই কবির ‘THE HEART IS A CAGED ANIMAL’ শীর্ষক কবিতার বই প্রকাশিত হয়েছে। ২০২০-তে ‘নতুন প্রজন্মের আফ্রিকার কবিদের বই সংগ্রহ’-এ তাঁর ‘PSALM FOR CHRYSANTHEMUNS’ বইটি নির্বাচিত হয়েছে। মাসিঙ্গা আন্তর্জালে সাক্ষাৎকারের পত্রিকা ‘আফ্রিকা ইন ডায়ালগ’-এর সঙ্গে যুক্ত।

ন্‌কাতেকো মাসিঙ্গা-র কবিতা

আমাদের নতুন বই