সুদীপ্ত চ্যাটার্জীর গুচ্ছকবিতা

আঙুল সিরিজ

বৃদ্ধাঙ্গুলি

তুমি ভালো ভাবেই জানো, অল্প বয়সেই চুলে পাক ধরেছে
তাই বলে রাখছি: আমার সাথে ইয়ার্কি ছেড়ে,
ভেবে চিন্তে কথা বলো
তুমি শাসক অথবা বিরোধী— যেই হও!
জেনে রেখো, বিপদ বুঝলে— মুখ ফেরাতে আমার দু সেকেন্ড লাগে না!

তর্জনী

বরাবর শাসন করে এসেছি ৷
শোনো: ‘জমিদারি মেজাজ’ কথাটা শুনেছো কোনদিন?
যে দিকে বলবো, সেই দিকে যাবে…
তার একটু অন্যথা হলেই
কী করে ঘি তুলতে হয় তা আমার ভালো করে জানা

মধ্যমা

তোমরা যে যাই বলো,
সংসার ধরে রাখতে গেলে একজন সাহসী দীর্ঘকায় অ্যাডজাস্টেবেল পুরুষ দরকার।
আছো?
আছো, তোমাদের মধ্যে কেউ?
ঘরে তো পাঁচ ভাই-বোন একসঙ্গে থাকি!

অনামিকা

কত বার বলবো : প্রেমের কথা শুনলেই—
গোটা গা কিলবিল করে ওঠে৷
ঘুম হয় না৷
রাত জেগে প্রেম করেতে হেব্বি লাগে৷

তবে আজকাল ভাবি,
এ সব করে কী হবে,কয়েক বছর তো কেটে গেলো!
আর তর সয় না,
প্রেমিক এসে, গলিয়ে দিলেই ভালো!

কনিষ্ঠা

তোমারা অনেক কথাই তো বললে
কিন্তু !
ভাই ফোঁটার দিন
দাদা এসে যখন ডাকে— পিংকি…
সত্যি বলছি , ভালোবাসায় বুক কেঁপে ওঠে৷
ভাবি, সব্বার ছোট্ট বলেই
হয়তো এত্তো আদর!

সুদীপ্ত চ্যাটার্জীর গুচ্ছকবিতা

আমাদের নতুন বই