সেলিম মণ্ডলের কবিতা

পাখি সব করে রব


নাচের স্কুলে তুমি কোন ময়ূর
মেঘ ডাকার আগেই ভুলে যাও পেখম তুলতে?


সেই হাঁড়িচাচাকে কি আজ খুঁজে পাওয়া যাবে
যে খাবারে সন্ধানে না গিয়ে হারিয়ে গেছে আজকের বিষণ্ণতায়?


ঘুঘুটি ডেকে ওঠার আগে কোন ফাঁদকে ইশারা করল
যা তুমি তৈরী করবে ভেবেছিলে?


কোন কাক ততটা কালো হতে পারেনি বলে
কালো স্তূপের মধ্যেও সহজে চেনা যায়?


ছটফট করা চড়ুইটি ঘুলঘুলি পেলে
তুমি কি তাকে ওড়ার জন্য আরও একটা জানালা খুলে দেবে?


কথা শেখাবে বলে তোতাটিকে পুষলে
কথা বলা শিখলে, তুমি কি কোনোদিন তার সঙ্গে গল্প করেছিলে, সারারাত?


মুরগিটি বাচ্চা দেওয়ার আগে শাদা ডিম দেবে
এই ভয়েই কি তুমি তার গলা কেটেছিলে?


প্যাঁক প্যাঁক করার আগেই কি হাঁস পেরিয়ে যেতে পারে
চেনা-অচেনা সমস্ত পুকুর?


গাছ না পেয়ে শালিখটি কি ঢুকে যাবে
কোনো অন্ধকার বাড়ির শস্যদানার দিকে?

১০
অপেক্ষা করতে করতে মাছরাঙাটি কি তোমায় বলেছিল
চেনা মাছেদের অচেনা সব গল্প?

১১
বকের ঠোঁটের দিকে ঝুঁকে তুমিও কি দেখেছিলে?
কত আবেগ সে সঞ্চয় করে রেখেছে?

১২
পায়রার ডানায় চিঠি গুঁজে দেবার আগেই যে নিবটি ভেঙেছ তুমি
তা কি আজও সারিয়ে তোলা সম্ভব হয়েছে?

১৩
তুমি কি দেখেছ সেই প্যাঁচা
যে রাত জাগতে ভুলে গিয়ে ঢুকে পড়েছে হ্যালোজেন বাড়ি?

১৪
বসন্ত এল না বলে যে কোকিলটি ডাকতে ভুলে গেল
সেও কি আসবে পরের বসন্তে?

১৫
পাতার ফাঁকে লুকিয়ে থাকা টুনটুনিকে দেখেছ কি
কীভাবে ফুড়ুৎ ফুড়ুৎ করে আহ্লাদ ছড়ায়?

১৬
কোন মৃতের অপেক্ষায় শকুনটি বাড়ির বাইরে ঘুরঘুর করছে
তাকে কি ভিতরে ডাকা যায়?

১৭
ছোঁ মারার আগেই কি চিলটিকে
তুমি সতর্ক করেছিলে, যাতে সে দ্রুত পালাতে গিয়ে ক্লান্ত হয়ে না পড়ে?

১৮
গাছ না পেয়ে কাঠকোঠরাটা কি ঘন জঙ্গলের ভিতর
এবার আত্মহত্যা করবে?

১৯
বুলবুলিটি কি কখনো তোমার চুলে
বেঁধে দেবে শৌখিন কোনো লাল ফিতের ঝুঁটি?

২০
বাড়ি ভেঙে সুন্দর বাসা বানাবে বলে
বাবুইকে কখনো ডেকেছ; একা, গোপনে?

সেলিম মণ্ডলের কবিতা

আমাদের নতুন বই