Sale!

By MD. MATIULLAH

কবিপত্নী লাবণ্য দাশ: উপেক্ষার অমীমাংসা

225.00 191.00

Description

লাবণ্য দাশ— যাঁর বড়ো পরিচয় জীবনানন্দ দাশের স্ত্রী। অসামান্য রূপসী লাবণ্যর সঙ্গে জীবনানন্দের বিবাহ হয় তাঁর ১৭-১৮ বছর বয়সে। পড়াশোনা অসম্পূর্ণ রেখেই পিতৃমাতৃহীন লাবণ্যকে বিয়েতে মত দিতে হয়। তারপর কঠিন অধ্যবসায়ে তিনি আইএ, বিএ এবং বিটি উত্তীর্ণ হন এবং শিক্ষকতাকে পেশা হিসেবে বেছে নেন। কর্মহীন জীবনানন্দের অস্বচ্ছল সংসারকে কঠোর পরিশ্রমে রক্ষা করে চলেন জীবনের শেষদিন পর্যন্ত। স্বভাবে জীবনানন্দের বিপরীত সদাচঞ্চল কর্মতৎপর এবং স্পষ্টবাক্ লাবণ্যের সঙ্গে জীবনানন্দের সম্পর্কে এসেছে কখনো কখনো ঝড়ঝঞ্ঝা। কল্পনা ও বাস্তব মিলিয়ে তাঁদের দাম্পত্য নিয়ে তৈরি হয়েছে সত্যমিথ্যা নানা গল্প। জীবনানন্দের মৃত্যুর পর তাঁর রচনাবলি প্রকাশের ব্যাপারে কী ভূমিকা ছিল লাবণ্য দাশের? ‘মাল্যবান’ উপন্যাসের যে রূঢ় দাম্পত্যের ছবি সেটিই কেন চিহ্নিত হয়ে যায় লাবণ্য-জীবনান্দের জীবনচিত্রের অংশ হিসেবে? এইসব নানা প্রশ্নের উত্তর খুঁজেছেন কবি ও গবেষক ড. মুহম্মদ মতিউল্লাহ্ তাঁর আলোচ্য বইতে। জীবনানন্দ জিজ্ঞাসায় এটি তাঁর দ্বিতীয় বই।

Additional information

Weight 155 g

212 responses to “কবিপত্নী লাবণ্য দাশ: উপেক্ষার অমীমাংসা”

  1. First off I want to say wonderful blog! I had a quick question in which I’d like to ask if you don’t mind. I was curious to know how you center yourself and clear your thoughts before writing. I have had a difficult time clearing my mind in getting my thoughts out. I do enjoy writing but it just seems like the first 10 to 15 minutes are wasted just trying to figure out how to begin. Any suggestions or tips? Cheers!

  2. I have been surfing online more than three hours nowadays, yet I never found any fascinating article like yours. It’s pretty value enough for me. Personally, if all site owners and bloggers made good content as you did, the internet might be much more useful than ever before.

  3. When I originally commented I seem to have clicked the -Notify me when new comments are added- checkbox and now every time a comment is added I get four emails with the same comment. Is there a way you can remove me from that service? Thanks!

  4. I have been surfing online more than three hours nowadays, yet I never found any interesting article like yours. It’s pretty value enough for me. In my opinion, if all website owners and bloggers made just right content as you did, the net can be much more useful than ever before.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *