By Editor Editor

শানু চৌধুরীর গুচ্ছকবিতা

টিমবুকটু
ঋণ – Timbuktu journey to the empire of knowledge


বালির ভিতর ডুবে আছে চটি-জোৎস্না
যে জোৎস্না লুকিয়ে রেখেছিল সাহারার প্রবেশটুকু
সেখানে প্রচুর আলখাল্লা হতে কে যেন দ্যাখে Read more “শানু চৌধুরীর গুচ্ছকবিতা”

Spread the love
By Editor Editor

শার্ল বোদল্যেরের তিনটি কবিতা

মূল ফরাসি থেকে অনুবাদ: যশোধরা রায়চৌধুরী

আলোকস্তম্ভ

রুব্যাঁস, বিস্মৃতিস্রোত, আলস্যের সাজানো বাগান
রক্তমাংসে গড়া শীতল বালিশ— যেইখানে নেই প্রেমের আহবান
সেইখানে ছলাচ্ছল তবু, নেয় ভাসিয়ে জীবন Read more “শার্ল বোদল্যেরের তিনটি কবিতা”

Spread the love
By Editor Editor

ওসিপ ম্যান্ডেলস্তেমের কবিতা

ভাষান্তর: ঈশানী বসাক


নিদ্রাহীনতা। হোমার। টানা পাল।
তালিকার মধ্যিখান অবধি আমি সমস্ত জাহাজের নাম পড়ে ফেলেছি:
দিশেহারা পশুর পাল, সারসের স্রোত Read more “ওসিপ ম্যান্ডেলস্তেমের কবিতা”

Spread the love
By Editor Editor

শুভংকর গুহ’র গল্প

শেষের তিনি

ওই যে তিনি, মাঠের ওপরে গাছের ডালে। তিনি সর্বেশ্বর, তিনি মায়া। তিনি যাদুকর। আছেন তিনি বর্তমানে। ছিলেন তিনি অতীতে। থাকবেনও তিনি ভবিষ্যতে। তিনি নাকি মানুষের হকের কথা বলেন। না, তিনি স্বপ্নের ফেরিওয়ালা নয়। আবার তিনিই গ্রামবাসীদের স্বপ্ন দেখান। সেই তিনিই প্রতিশ্রুতি প্রদানকারী। Read more “শুভংকর গুহ’র গল্প”

Spread the love
By Editor Editor

বুদ্ধদেব হালদারের গুচ্ছকবিতা

সাইকো


এবারের ডিসেম্বরের কথা তুমি ভুলে যেও না যেন? যদিও
ভীষণ দাড়িগোঁফ বেড়ে গেছে আমার। চুলে খুশকিও হইয়াছে
প্রবল। তবুও আমাদের এখনই কিছু প্রেমের কবিতা লিখে রাখা Read more “বুদ্ধদেব হালদারের গুচ্ছকবিতা”

Spread the love
By Editor Editor

অমিতরূপ চক্রবর্তী’র গুচ্ছকবিতা

২৫ শে জানুয়ারী

এমনই একদিন ঝুরি ঝুরি রোদ আর স্বাভাবিক লতাপাতার মধ্যে ইচ্ছের সংজ্ঞা বদলে যায়। তীর্যক হাত এসে পড়ে থাকে আরেকটি হাতের সীমায়। পাখি ডাকে। কামাতুর রং ছড়িয়ে পড়ে পশমের মতো রোদের মধ্যে। মাথায় টিনের টোপর পরা সব ঘরবাড়ি, গাঢ় দাগ রেখে বয়ে যাওয়া দুর্দিন— সুদিন, যোনি আর লিঙ্গের বোঝাপড়া। এমনই একদিন ন্যায্য— অন্যায্য তর্কের মধ্যে ইচ্ছের সংজ্ঞা বদলে যায় Read more “অমিতরূপ চক্রবর্তী’র গুচ্ছকবিতা”

Spread the love
By Editor Editor

কুন্তল কোলের গদ্য

এই দুটো গল্প আমি উৎসর্গ করলাম আমার প্রিয় বাথরুমকে


তুমি অনুভব করো সেই হাগাটা যেটা আমি করে উঠতে পারিনি…

কে যেন পায়ের তলায় জ্বালানো সিগারেট ফেলে চলে গ‍্যাছে— না দেখে ফেলে দিলাম পা— বলে উঠলাম উউউউ— কিছুক্ষণের মধ্যেই চামড়াটা ফুলে গেল— জল জমল তার ভিতর— তৎক্ষণাৎ সেফটিপিন দিয়ে উসকে দিলাম— দু ফোটা জল গড়িয়ে পড়ল মেঝেতে— Read more “কুন্তল কোলের গদ্য”

Spread the love